Home / খেলা / রেকর্ডের সঙ্গে মেসির হাফ সেঞ্চুরিও!

রেকর্ডের সঙ্গে মেসির হাফ সেঞ্চুরিও!

দেশের হয়ে বড় কোনো শিরোপা জেতা হয়নি বলে তাঁকে নিয়ে নিয়মিতই সমালোচকদের কটুবাক্য শোনা যায়। নিন্দুকেরা এমনকি এ কথাও বলতে ছাড়েন না যে লিওনেল মেসি তাঁর সেরা সময়টা পেছনেই ফেলে এসেছেন। অবশ্য এসব আলোচনা উচ্চকিত হতে পারে না খুব। এর আগেই যে আর্জেন্টাইন জাদুকরের রাক্ষুসে গোলক্ষুধা তাঁকে নিয়ে নেতিবাচক শোরগোল থামিয়ে দেয়। যেমন দিল বুধবার রাতের ন্যু ক্যাম্পও। বার্সেলোনার হোম গ্রাউন্ডে চ্যাম্পিয়নস লিগ লড়াইয়ে ইংলিশ জায়ান্ট ম্যানচেস্টার সিটিকে ৪-০ গোলে উড়িয়ে দেওয়ার পথে হ্যাটট্রিক করে নিজেকে তুলে নিয়েছেন আরো অনন্য উচ্চতায়। ইউরোপিয়ান ক্লাব ফুটবলের শ্রেষ্ঠত্বের আসরে এটি যে ছিল তাঁর সপ্তম হ্যাটট্রিক।

এর চেয়ে বেশি হ্যাটট্রিক করার কীর্তিও আছে। তবে সেটি কোনো ব্যক্তির নয়, দলের। অবশ্য তাঁর সব হ্যাটট্রিক যেহেতু বার্সেলোনার হয়েই, তাই স্বাভাবিকভাবেই হিসাবে এখানে তাঁর নিজের দলকে বাইরে রাখা হয়েছে। বার্সার হয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগে হ্যাটট্রিক করেছেন রিভালদো, রোনালদিনহো এবং স্যামুয়েল এতোও। তবে কাতালানদের বাদ দিয়ে হ্যাটট্রিক সংখ্যায় সবচেয়ে এগিয়ে থাকা দলটি মেসির ধরাছোঁয়ার বাইরেও নয়। চ্যাম্পিয়নস লিগ ইতিহাসে দল হিসেবে ৯টি হ্যাটট্রিক রিয়াল মাদ্রিদের। এর মধ্যে একাই ৫টি করেছেন বিশ্বসেরা ফুটবলারের স্বীকৃতির লড়াইয়ে মেসির প্রবল প্রতিদ্বন্দ্বী ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। চ্যাম্পিয়নস লিগে হ্যাটট্রিক করার প্রতিযোগিতাও যেন এখন এই দুজনের মধ্যেই সীমাবদ্ধ হয়ে আছে। পরশু রাতে সেই লড়াইয়ে নিজেকে বেশ সুবিধাজনক জায়গাতেই নিয়ে গেছেন বার্সেলোনা তারকা। অবশ্য অন্যদের পক্ষে তাঁদের ধরে ফেলার ব্যাপারটি অনেক দূরের পথ। রোনালদোর পর সর্বোচ্চ তিনটি করে হ্যাটট্রিক মারিও গোমেজ ও ফিলিপ্পো ইনজাগির। এঁদের বহু আগেই পেছনে ফেলা ২৯ বছর বয়সী আর্জেন্টাইন ম্যানসিটিকে ধসিয়ে দেওয়ার রাতে ছুঁয়ে ফেলেছেন বায়ার্ন মিউনিখকেও। রিয়ালের পর সর্বোচ্চ ৭টি হ্যাটট্রিক জার্মান জায়ান্টের খেলোয়াড়দের। একই শহরের দলকে হারানোর পথে মেসির হ্যাটট্রিকটি ছিল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে (চ্যাম্পিয়নস লিগে ৬টি হ্যাটট্রিক তাঁদের) ছাড়িয়ে যাওয়ারও।

হ্যাটট্রিকের সঙ্গে আরেকটি রেকর্ডও গড়েছেন তিনি। চ্যাম্পিয়নস লিগ ইতিহাসে নিজ দলের মাঠে মেসির গোলের হাফসেঞ্চুরি হয়ে যাওয়াও এখন সর্বকালীন রেকর্ড। এত দিন ৪৯ গোল করে এই রেকর্ডটির মালিকানা ছিল রাউল গঞ্জালেসের। বার্সার হয়ে নিজের ৩৭তম হ্যাটট্রিক করার পথে লুইজ আদ্রিয়ানোর পর চ্যাম্পিয়নস লিগ ইতিহাসের মাত্র দ্বিতীয় খেলোয়াড় হিসেবে টানা দ্বিতীয় ম্যাচে হ্যাটট্রিক করার নজিরও গড়েছেন মেসি। গোলডটকম

Check Also

764

যেন পাখি হয়ে উড়ে ক্যাচ ধরলেন নাসির!

নাসির হোসেন কি পাখি কোনো? ঈগলের মতো চোখ! ডানা আছে তার? নাকি সুপারম্যান কোনো! এমন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *